বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবসে   বাঘায় র‌্যালী 

নিজস্ব প্রতিবেদক | প্রকাশিত: ১০ জানুয়ারী ২০২২ ১৮:২৭; আপডেট: ১০ জানুয়ারী ২০২২ ১৮:২৮

জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষে বাঘায় র‌্যালী ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।  সোমবার বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ বাঘা উপজেলা শাখার আয়োজনে এই দিবস টি পালন করা হয়।
সকাল ১১ টায় বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ বাঘা শাখার অফিস কার্যালয় থেকে একটি বিশাল র‌্যালীটি শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিন করে বঙ্গবন্ধু মুর্যালে বিনম্র শ্রদ্ধাঞ্জলী অর্পণ করেন। এর অফিস কার্যলয়ে আলোচনা সভায় আওয়ামীলীগ নেতা মাসুদ রানা তিলুর সভাপতিত্বে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখের বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ বাঘা উপজেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক আশরাফুল ইসলাম বাবুল। বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক সিরাজুল ইসলাম মন্টু, অধ্যক্ষ নছিম উদ্দিন, বঙ্গবন্ধু সৈনিক লীগের বাঘা উপজেলা সভাপতি আনোয়ার হোসেন মিল্টন, বাঘা পৈারসভার প্যানেল মেয়র ও বাঘা যুবলীগের যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক শাহিনুর রহমান পিন্টু, চকরাজাপুর ইউপির চেয়ারম্যান বাবুল দেওয়ান, বাংলাদেশ ছাত্রলীগ বাঘা উপজেলা শাখার ভারপ্রাপ্ত সভাপতি সোহানুর রহমান সোহাগ।এ সময় উপস্থিত ছিলেন রাজশাহী জেলা পরিষদের সদস্য জয়জন্তী মালতি সরকার, বাঘা উপজেলা পরিষদের মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান রিজিয়া আজিজ সরকার, আড়ানী পৈারসভার ভারপ্রাপ্ত মেয়র কার্তিক হালদার, বাঘা উপজেলা মহিলা আওয়ামীলীগ সভাপতি ফাতেমা মাসুদ লতা, ইউপি চেয়ারম্যান রবিউল ইসলাম রবি, রফিকুল ইসলাম রফিক, সাইফুল ইসলাম,বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ আড়ানী পৈার শাখার সভাপতি শাহিদ্দুজ্জামান শহীদ,আড়ানী ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ সাধারণ সম্পাদক এনামুল হক, বাউসা ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ সাধারণ সম্পাদক জাহিদুল ইসলাম,মনিগ্রাম ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ সাধারন সম্পাদক জিল্লুর রহমান, বাঘা পৈার যুবলীগের সভাপতি শাহিন আলম, সাধারণ সম্পাদক যুবাইদুল হক, আড়ানী পৌর ছাত্রলীগের সভাপতি রিবন আহাম্মেদ বাপ্পী প্রমুখ।

এদিকে রাজশাহীর বাঘায় ছাত্রলীগের ৭৪ তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে শীতার্তদের মাঝে শীতবস্ত্র কম্বল বিতরণ করা হয়েছে। মঙ্গলবার বিকেলে বাঘা উপজেলা আওয়ামীলীগের অফিস কার্যলয়ের মাঠে ৭৪ পাউন্ডের একটি কেক কেটে দিবসটি পালন করা হয় ও একটি বিশাল র‌্যালী বাঘা শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষীন করে আলোচনা সভায় মিলিত হয়। বাঘা উপজেলা ছাত্রলীগ অনুষ্ঠানের আয়োজন করেন।

বাঘা উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি (ভারপ্রাপ্ত) সোহানুর রহমান সোহাগের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক নাজমুল হোসেনের উপস্থাপনায় আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক আশরাফুল ইসলাম বাবুল। বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক সিরাজুল ইসলাম মন্টু, অধ্যক্ষ নছিম উদ্দিন, সাংগঠনিক সম্পাদক উপধাক্ষ্য ওয়াহিদ সাদিক কবির,আওয়ামীলীগ নেতা মাসুদ রানা তিলু,জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক বর্তমান পাকুড়িয়া ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মেরাজুল ইসলাম মেরাজ, বাঘা পৈারসভার প্যানেল মেয়র ও বাঘা যুবলীগের যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক শাহিনুর রহমান পিন্টু, বাঘা পৈার আওয়ামীলীগ সভাপতি আব্দুল কুদ্দুস সরকার, সাধারণ সম্পাদ মামুন হোসেন, বাঘা উপজেলা মহিলা আওয়ামীলীগ সভাপতি ফাতেমা মাসুদ লতা, ইউপি চেয়ারম্যান রবিউল ইসলাম রবি, রফিকুল ইসলাম রফিক, বঙ্গবন্ধু সৈনিক লীগের বাঘা উপজেলা সভাপতি আনোয়ার হোসেন মিল্টন, আড়ানী পৌর ছাত্রলীগের সভাপতি রিবন আহাম্মেদ বাপ্পী প্রমুখ।
প্রধান অতিথি আশরাফুল ইসলাম বাবুল বলেন, বাংলাদেশ বিভিন্ন গণতান্ত্রিক আন্দোলন ও সংগ্রামে বলিষ্ঠ নেতৃত্ব দানকারী ঐতিহ্যবাহি ছাত্র সংগঠন বাংলাদেশ ছাত্রলীগের ৭৪ তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী এ কথাগুলো বলেন তিনি আরো বলেন বাংলাদেশ ছাত্রলীগ তার দীর্ঘ রাজনৈতিক পরিক্রমায় ৫২’র ভাষা আন্দোলন, ৫৪’র প্রাদেশিক পরিষদের নির্বাচনে যুক্তফ্রন্টের বিজয়, ৫৮’র আইয়ুববিরোধী আন্দোলন, ৬২’র শিক্ষা আন্দোলন, ৬৬’র ছয় দফার পক্ষে গণঅংশগ্রহণের মাধ্যমে মুক্তির সনদ হিসেবে এই দাবিকে প্রতিষ্ঠা করে। এরপর ৬৯’র গণঅভ্যুত্থানের মাধ্যমে বঙ্গবন্ধুকে কারাগার থেকে মুক্ত করে আনা, ৭০’র নির্বাচনে আওয়ামী লীগের নিরঙ্কুশ জয়লাভ ও ৭১’র মহান মুক্তিযুদ্ধে অংশগ্রহণ করে পরাধীন বাংলায় লাল সবুজের পতাকার বিজয় ছিনিয়ে আনতে অগ্রণী ভূমিকা পালন করে।

বাঘা পৈারসভার প্যানেল মেয়র শাহিনুর রহমান পিন্টু বলেন, ১৯৭১ সাল ১৬ ডিসেম্বর মহান স্বাধীনতা অর্জনের পর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নেতৃত্বে যুদ্ধ-বিধ্বস্ত বাংলাদেশ পুনর্গঠনে অংশ নেয় ছাত্রলীগ। ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট জাতির পিতা সপরিবারে নিহত হওয়ার পর ছিনতাই হয়ে যায় স্বাধীনতার চেতনা ও গণতান্ত্রিক ধারা। ১৯৮১ সালের ১৭ মে বঙ্গবন্ধু-কন্যা শেখ হাসিনা (বর্তমান প্রধানমন্ত্রী) দেশে ফিরে স্বাধীনতার চেতনা পুনঃপ্রতিতষ্ঠা ও গণতান্ত্রিক ধারা পুনরুদ্ধারে আন্দোলনের সূচনা করেন। ছাত্রলীগ ৯০-এর স্বৈরাচারবিরোধী আন্দোলনে শেখ হাসিনার নেতৃত্বে অনন্য ভূমিকা পালন করে।

 

 



বিষয়:


বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাস

আপনার মূল্যবান মতামত দিন:


এই বিভাগের জনপ্রিয় খবর
Top