মুশফিক তাণ্ডবের পর সিলেটে বৃষ্টি, খেলা বন্ধ

রাজটাইমস ডেস্ক | প্রকাশিত: ২১ মার্চ ২০২৩ ০২:১১; আপডেট: ১৯ জুন ২০২৪ ০৭:৫০

ছবি: সংগৃহীত

দীর্ঘ ১৫ বছর পর পূর্ণাঙ্গ সিরিজ খেলতে বাংলাদেশে এসেছে আয়ারল্যান্ড। দ্বিপাক্ষিক এই সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচে টসে জিতে বোলিং করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন আইরিশ অধিনায়ক অ্যান্ড্রু বালবির্নি। আগে ব্যাট করতে নেমে আইরিশদের বিপক্ষে দ্বিতীয় ওয়ানডেতে ৩৪৯ রানের পাহাড় গড়েছে মুশফিক-তামিমরা।

যা টাইগারদের ওয়ানডে ক্রিকেট ইতিহাসে সর্বোচ্চ রান। ব্যাট হাতে ঝড় তুলে মাত্র ৬০ বলে শতক হাঁকিয়েছেন মুশফিকুর রহিম। ওয়ানডেতে বাংলাদেশের হয়ে দ্রুততম সেঞ্চুরির রেকর্ড এটি। তবে টাইগারদের দেওয়া ৩৫০ রানের লক্ষ্যে এখনো ব্যাটিংয়ে নামা হয়নি অ্যান্ড্রু বালবির্নি দলের। বৃষ্টির কারণে ম্যাচটি আপাতত বন্ধ রয়েছে।

বাংলাদেশের ইনিংস শেষ হওয়ার পরই সিলেটে শুরু হয় মুষলধারে বৃষ্টি। যার ফলে আয়ারল্যান্ডের ব্যাটিংয়ে নামতে দেরি হচ্ছে। আপাতত কাভার দিয়ে ঢাকা রয়েছে পিচ। অবশ্য আজ সোমবার সকালে সিলেটের আকাশ ছিল মেঘে ঢাকা।

গতকাল রোববারও গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টিতে ভিজেছে শহরের পথ। কিন্ত দ্বিতীয় ইনিংস শুরুর সময় হয়ে গেলেও বৃষ্টি থামছে না। স্থানীয় সময় ৬টা ২৮ মিনিট থেকে ওভার কাটা শুরু হওয়ার কথা ছিল। এখন চলছে সেটি।

এদিন আগে ব্যাট করতে নেমে বাংলাদেশকে ভালো শুরু এনে দেন ওপেনার তামিম ইকবাল ও লিটন দাস। এই জুটিতে গড়েন ৪২ রান। কিন্তু এদিন ম্যাচে পুরো কৃতীত্ব আইরিশদের, বোলিংয়ের পাশাপাশি দারুণ ফিল্ডিংও করেছেন তারা।

যার ফলে মার্ক এড্যাইরের দারুণ থ্রোতে সরাসরি রান আউটে কাটা পড়েন বাংলাদেশ অধিনায়ক। আউট হবার আগে তার ব্যাটে আসে ৩১ বলে ২৩ রান। ফলে জন্মদিনটা আর রাঙানো হলো না তামিমের।।

অধিনায়কের বিদায়ের পর উইকেটে আসেন নাজমুল হাসান শান্ত। শান্তকে সঙ্গে নিয়ে রানের চাকা সচল রাখেন লিটন। নিজের সাবলীল ব্যাটিংয়ে ৫৪ বলে নিজের অর্ধশতক পূরণ করেন লিটন দাস।

তবে দলীয় ১৪৩ রানে কার্টিস ক্যাম্ফারের বলে শর্ট লেংথের বলে ঘুরিয়ে খেলতে গিয়ে শর্ট মিডউইকেটে সহজ ক্যাচ দিয়েছেন লিটন। ফলে ১০১ রানের জুটি ভেঙেছে লিটনের উইকেট বিলিয়ে দেওয়ার মানসিকতায়। এতে ৭১ বলে ৭০ রানের শেষ হয় তার ব্যাক্তিগত ইনিংস।

লিটনের বিদায়ের পরে সাকিব আল হাসানকে সঙ্গে নিয়ে রানের চাকা সচল রাখেন শান্ত। নিজের আগ্রসী ব্যাটিংয়ে ৫৯ বলে ফিফটিও পেয়ে যান এই বাহাতি ব্যাটার। তবে দলীয় ১৮২ রানে, ১৯ বলে ১৭ রান করে সাজঘরে ফিরে যান সাকিব।

অধিনায়কের বিদায়ের পর ক্রিজে আসেন হৃদয়। এরপর দলীয় ১৯০ রানে ৭৩ রান করে আউট হন শান্ত। নাজমুল হোসেন শান্তর বিদায়ের পর ক্রিজে আসেন মুশফিক।

দ্রুত ২ উইকেট পড়ার পর আয়ারল্যান্ডের বোলারদের চেপে বসতে দিলেন না মুশফিকুর রহিম ও হৃদয়। পাল্টা আক্রমণে জুটি গড়লেন এই দুই মিডল-অর্ডার ব্যাটার। মুশফিকের ঝড়ো ব্যাটে নিজের অর্ধশতক পূরণ করেন ৩৪ বলে। ওপর প্রান্তে হৃদয়ও ব্যাটিংয়ে তান্ডব চালাতে থাকে।

তবে দলীয় ৩১৮ রানে ৩৪ বলে ৪৯ রান করে আউট হন হৃদয়। এরপর উইকেটে আসেন ইয়াসির রাব্বি। অন্যদিকে ঝড়ো ব্যাটিংয়ে ইনিংসের শেষ ওভারে দ্রুততম শতক পূরন করেন মুশফিক। শেষ পর্যন্ত নির্ধারিত ৫০ ওভারে ৬ উইকেট হারিয়ে ৩৪৯ রান সংগ্রহ করেছে বাংলাদেশ। যা টাইগারদের ওয়ানডে ক্রিকেট ইতিহাসে সর্বোচ্চ রান।



বিষয়:


বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাস
এই বিভাগের জনপ্রিয় খবর
Top