বাংলাদেশের চাওয়া জয়, ভারত হাঁটছে ‘বিশ্রাম’ নীতিতে

রাজ টাইমস ডেস্ক : | প্রকাশিত: ১৫ সেপ্টেম্বর ২০২৩ ২০:১৪; আপডেট: ২৪ জুলাই ২০২৪ ০৭:০৭

ছবি: সংগৃহীত

এক দল উঠে গেছে ফাইনালে। আরেক দলের নিশ্চিত হয়েছে বিদায়। এমন দুই দলের গুরুত্বহীন লড়াইয়ে আসলে চাওয়া-পাওয়ার বিশেষ তাড়না থাকে না। বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যকার আজকের সুপার ফোরের শেষ ম্যাচটিতেও দুই দলের কারোরই বিশেষ কিছু পাওয়ার তাড়না থাকার কথা নয়!

কিন্তু বাংলাদেশ অধিনায়ক সাকিব আল হাসান তা মানছেন না। তার মতে, পরিস্থিতি যা-ই হোক, একটা আন্তর্জাতিক ম্যাচ হিসেবে এই ম্যাচেও তাদের চাওয়া-পাওয়ার আছে। সাকিবের সেই চাওয়াটা হচ্ছে—জয়। আজ ভারতের বিপক্ষে জিতেই দেশের বিমানে উঠতে চান তিনি।

প্রতিপক্ষ ভারতেরও কি চাওয়া জয়? লক্ষ্য কী তা ভারতীয়রাই জানে। তবে একটা বিষয় এক রকম নিশ্চিত, আজকের গুরুত্বহীন ম্যাচে ভারত হাঁটছে ‘বিশ্রাম নীতি’তে। যেহেতু তাদের ফাইনাল নিশ্চিত, তাই আজকের ম্যাচে ভারত দলের বেশ কয়েক জন তারকা খেলোয়াড়কে বিশ্রাম দিতে পারে বলেই গুঞ্জন উঠেছে।

ভারতের বোলিং কোচ পরস মামব্রেও গতকাল ম্যাচপূর্ব সংবাদ সম্মেলনে এসে ‘বিশ্রাম নীতি’র সম্ভাবনার কথাই শুনিয়েছেন। যেহেতু তারা ফাইনালে উঠে গেছে, কাজেই তাদের সব ভাবনা এখন ১৭ তারিখের ফাইনাল নিয়ে।

২০১৮ সালে ওয়ানডে ফরম্যাটের সর্বশেষ এশিয়া কাপে এই বাংলাদেশকে হারিয়েই শিরোপা জিতেছিল ভারত। অথচ আজ সেই বাংলাদেশের বিপক্ষেই ভারত নামছে ফাইনালের প্রস্তুতি নিতে! এই তথ্যেই বাংলাদেশের অধঃপতনটা স্পষ্ট। এশিয়া কাপ ঘিরে অনেক প্রত্যাশা থাকলেও শ্রীলঙ্কা-পাকিস্তানে বাংলাদেশ দল সেই প্রত্যাশা পূরণ করতে পারেনি। উলটো সুপার ফোরে নিজেদের প্রথম দুই ম্যাচেই অসহায় আত্মসমর্পণের মাধ্যমে এক ম্যাচ থাকতেই ফাইনালের দৌড় থেকে ছিটকে পড়েছে।

ফলে আজ আশাহীন চোখে নামতে হচ্ছে নিয়ম রক্ষার ম্যাচে। তবে বাংলাদেশ অধিনায়ক সাকিব কল্প চোখে জয় স্বপ্নের ছবি এঁকেই নামছেন মাঠে। গতকাল ম্যাচপূর্ব সংবাদ সম্মেলনে সাকিব বলেছেন, ‘অবশ্যই চাওয়া-পাওয়ার আছে। আমরা ভারতের বিপক্ষে ম্যাচটা জিততে চাই। এটা করতে পারলে আমাদের জন্য তা ভালো কিছুই হবে। ম্যাচটা জিতেই দেশে ফিরতে চাই।’

সাকিবের এই চাওয়ার পথটা একটু হলেও সহজ করে দিতে পারে ভারতের বিশ্রাম নীতি। এরই মধ্যে গণমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়েছে, বাংলাদেশের বিপক্ষে ‘আনুষ্ঠানিকতা’র ম্যাচটিতে দলের তারকা ব্যাটসম্যান বিরাট কোহলি ও পেসার জসপ্রিত বুমরাহকে বিশ্রাম দিতে যাচ্ছে ভারত।

ভারতের বোলিং কোচ পরস মামব্রেও ‘বিশ্রাম নীতি’র সম্ভাবনার কথা বলেছেন। তবে কাকে কাকে বিশ্রাম দেওয়া হতে পারে, বা সত্যিই কাউকে বিশ্রাম দেওয়া হবে না, সেই সিদ্ধান্ত এখনো নেওয়া হয়নি বলেই জানিয়েছেন তিনি, ‘আসলে এখনো কাউকে বিশ্রাম দেওয়ার বিষয়ে সিদ্ধান্ত হয়নি। তবে এই ম্যাচে সুযোগ আছে দলের অন্যদের পরখ করে দেখার কারণ। যেহেতু আমরা ফাইনালে উঠে গেছি।’

বিশ্রাম নীতির পথে হাঁটলেও ভারতের চাওয়াটা যে জয়ই থাকবে, সেটিও পরস মামব্রের কথাতেই স্পষ্ট। প্রতিপক্ষ বাংলাদেশ নিয়ে কথা বলতে গিয়ে তিনি যেমন বলেছেন, ‘বাংলাদেশ ভালো একটা দল। অন্য যে কোনো দলের মতো বাংলাদেশের বিপক্ষেও জিততে হলে আমাদের সেরা খেলাটাই খেলতে হবে।’

উল্লেখ্য, বাংলাদেশ-ভারতের মধ্যকার ম্যাচটি শুরু হবে বাংলাদেশ সময় বিকাল সাড়ে ৩টায়। সরাসরি সম্প্রচার করবে টি স্পোর্টস, গাজী টিভি ও র‍্যাবিটহোল।



বিষয়:


বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাস
এই বিভাগের জনপ্রিয় খবর
Top