ভর্তিচ্ছুদের মেধাক্রম দেয়া নিয়ে যা বলছেন গুচ্ছভুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যরা

রাজটাইমস ডেস্ক | প্রকাশিত: ১৪ আগস্ট ২০২২ ১৯:৫০; আপডেট: ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২২ ০৭:০৪

ছবি : প্রতিকী

গুচ্ছভুক্ত ২২ বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০২১-২২ শিক্ষাবর্ষের সমন্বিত ভর্তি পরীক্ষায় এবারও মেধাতালিকা দেয়া হচ্ছে না। এতে গত শিক্ষাবর্ষের ন্যায় এই শিক্ষাবর্ষেও একাধিক আবেদনসহ ভোগান্তিতে পড়তে হবে বলে বলছেন শিক্ষার্থীরা।

শিক্ষার্থীদের ভোগান্তির বিষয় নিয়ে কথা বলতে যোগাযোগ করা হয় গুচ্ছের একাধিক বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যদের সাথে। তারা বলছেন 'ক' ইউনিটে ৩০ নম্বর কিংবা তার চেয়ে বেশি পেয়েছেন প্রায় দেড় শিক্ষার্থী। এই বিপুল সংখ্যক ভর্তিচ্ছুর মেধাতালিকা প্রণয়ন করা সম্ভব নয়।

জানতে চাইলে গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষা আয়োজক কমিটির আহবায়ক এবং শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ফরিদ উদ্দিন বলেন, প্রায় দেড় লাখ শিক্ষার্থীর মেধাক্রম কীভাবে দেব? আমাদের অনেক শিক্ষার্থী একই নম্বর পেয়েছে। তাই মেধাক্রম দেওয়া সম্ভব হবে না। আমরা শিক্ষার্থীদের জানিয়ে দেব যে তারা কোথায় কোথায় আবেদন করতে পারবে।

গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষা আয়োজক কমিটির যুগ্ম আহবায়ক ও জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ইমদাদুল হক বলেন, এই মুহূর্তে মেধাক্রম দেওয়া সম্ভব নয়। শিক্ষার্থীরা ভর্তি পরীক্ষায় যে নম্বর পেয়েছে শুধু সেটি জানিয়ে দেওয়া হয়েছে। শিগগিরই ভর্তি বিজ্ঞপ্তি প্রকাশিত হবে। সেখানে এ বিষয়ে বিস্তারিত জানানো হবে।

রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. শাহ আজম জানান, মেডিকেলের আদলে গুচ্ছ ভর্তি প্রক্রিয়া হওয়ার কথা বলা হলেও এই দুটিতে চরিত্রগত পার্থক্য রয়েছে। তাই একই প্রক্রিয়া অনুসরণ করা যাচ্ছে না। আগামী ২০ আগস্ট গ ইউনিটের পরীক্ষা শেষে আমাদের মধ্যে একটি সভা হবে। সেখানে ভর্তি প্রক্রিয়া কীভাবে সম্পন্ন করা হবে সে বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।



বিষয়:


বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাস

আপনার মূল্যবান মতামত দিন:


এই বিভাগের জনপ্রিয় খবর
Top