যুক্তরাষ্ট্রের কপিন স্টেট বিশ্ববিদ্যালয়ের সাথে রাবির সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর

রাবি প্রতিনিধি | প্রকাশিত: ১৬ জানুয়ারী ২০২২ ২০:১১; আপডেট: ২৭ মে ২০২২ ০৩:২০

বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদ সৈয়দ নজরুল ইসলাম প্রশাসন ভবনের কনফারেন্স রুমে এই সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরিত হয়।

উচ্চশিক্ষা ও গবেষণা ক্ষেত্রে পারস্পরিক সহযোগিতার লক্ষ্যে যুক্তরাষ্ট্রের কপিন স্টেট বিশ্ববিদ্যালয়ের সাথে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) এক সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর হয়েছে।রোববার সকাল ১০টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদ সৈয়দ নজরুল ইসলাম প্রশাসন ভবনের কনফারেন্স রুমে এই সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরিত হয়।

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের পক্ষে উপ-উপাচার্য অধ্যাপক চৌধুরী মো. জাকারিয়া ও কপিন স্টেট বিশ্ববিদ্যালয়ের পক্ষে ন্যাচারাল সান্সেস বিভাগের সেন্টার ফর ন্যানোটেকনোলজির প্রতিষ্ঠাতা পরিচালক অধ্যাপক জামাল উদ্দিন সমঝোতা স্মারকে স্বাক্ষর করেন।

সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে উপস্থিত বক্তারা বলেন, এই শতাব্দীতে বায়োটেকনোলজি ও ন্যানোটেকনোলজি মানুষের জীবনের নানা ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখছে। স্বাস্থ্য, পরিবেশ, কৃষি, শিল্প ও বিজ্ঞানের বিভিন্ন শাখায় বায়োটেকনোলজি ও ন্যানোটেকনোলজির বহুবিধ ব্যবহার রয়েছে। প্রসাধনী থেকে শুরু করে সমুদ্র অর্থনীতিতেও ন্যানোটেকনোলজির ছোঁয়া লেগেছে। রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের সাথে কপিন স্টেট বিশ্ববিদ্যালয়ের যে সমঝোতা স্থাপিত হচ্ছে তার মাধ্যমে বিশ্ববিদ্যালয় দুটির শিক্ষক, শিক্ষার্থী ও গবেষকরা সংশ্লিষ্ট ক্ষেত্রে জ্ঞান বিনিময় ছাড়াও উদ্ভাবনী গবেষণা করতে পারবেন বলে বক্তারা আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

এসময় রাবি উপ-উপাচার্য অধ্যাপক মো. সুলতান-উল-ইসলাম, রেজিস্ট্রার অধ্যাপক আবদুস সালাম, প্রকৌশল অনুষদের অধিকর্তা অধ্যাপক আবু জাফর মো. তৌহিদুল ইসলাম, ম্যাটেরিয়ালস সায়েন্স এন্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের সভাপতি অধ্যাপক জি এম শফিউর রহমান ও অধ্যাপক আনোয়ারুল কবীর ভূঁইয়া, জনসংযোগ দপ্তরের প্রশাসক অধ্যাপক প্রদীপ কুমার পাণ্ডে, অফিস অব ইন্টারন্যাশনাল অ্যাফেয়ার্সের সহকারী পরিচালক মো. আ. আলীম, উপ-রেজিস্ট্রার (একাডেমিক) এ এইচ এম আসলাম হোসেন প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

পরে ড. এম এ ওয়াজেদ মিয়া একাডেমিক ভবনের গ্যালারিতে এক সেমিনারে অধ্যাপক জামাল উদ্দিন "Nanotechnology : Small things Matter and Have Power to Transform Energy, Health and the Environment" শীর্ষক প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন। এতে প্রকৌশল অনুষদভুক্ত বিভাগসমূহের প্রায় ৫০ জন শিক্ষক অংশগ্রহণ করেন।

 



বিষয়:


বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাস

আপনার মূল্যবান মতামত দিন:


এই বিভাগের জনপ্রিয় খবর
Top