শাবানা ইসলাম বন্যার কবিতা

আমি প্রীতি তুমি হও প্রত্যয়

সাহিত্য পাতা | প্রকাশিত: ১৩ জানুয়ারী ২০২১ ০৮:০৮; আপডেট: ২০ জানুয়ারী ২০২১ ১৩:২৭

শাবানা ইসলাম বন্যা
মেঘের বাঁধ ছিলো না, মিঠেল রোদ সোজা গিয়ে পড়েছিলো সুতনুতে
রোদেলা, পুষ্পিতা পুষ্প ঘ্রাণে রয় মেতে।
দু'দন্ড পাইনি জিরানোর বাঁক এতক্ষণে
একুশের পয়লা সুধাকর ডুবেছে হয়তো উঠেছে চন্দ্রমুখী চন্দ্রক্ষণে।
আজ বড্ড প্রীতিতে, প্রত্যয়ে ভাবছে মন হোক সৃজন
দৃষ্টিভঙ্গির ইচ্ছে মতো রূপান্তর, মানবের আবেগ,কখন কোথায় করে বিচরণ।
প্রীতি, প্রত্যয় দু'জনেই আমার পছন্দের
ইনারা বর্তমান যখন হৃদয় হয় ছন্দের।
বেলা শেষের গানে প্রীতি যদি হয় পত্রলেখা
ফিরে পাবে কি কাব্যের ক্ষণ,একুশের দিনমণির আলোর পাখা?
তবুও লিখুক প্রীতি, প্রত্যয়কে পত্রখানা থাকুক স্মরণে সন টা
দুইহাজার একুশের মাত্র শুরু গত হয়নি চব্বিশ ঘন্টা।
জানো প্রত্যয়, "একুশ" শব্দটা তোমার মতো
প্রীতি, প্রত্যয়ে আশা, ভালোবাসা যতো।
আছে দৃঢ়তা, অদম্য স্পৃহা, এগিয়ে যাওয়ার গল্পখানা
কৃষ্ণচূড়া রঙে পিচঢালা পথে সাজিয়েছিল অক্ষরমালার আল্পনা।
মনমিনারের সুরে একুশের বীণ বাজে
প্রীতি,প্রত্যয়হীনে হৃদয়হীনা সাজে।
হুম, হতে চাই প্রীতি হও তুমি প্রত্যয়
জীবন স্রোতের ভাসা খড়কুটো পাবে আশ্রয় হবে না ব্যত্যয়।
প্রীতিতে রাখি বেঁধে শেকল বন্ধন, বাস হৃদয়ে, অন্তরে
প্রত্যয়ে এগুক জীবন, রুখবো ক্রন্দন, অবস্থান দৃঢ়তার বন্দরে।


বিষয়:


বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাস
এই বিভাগের জনপ্রিয় খবর
Top