রস ছাড়াই গুড় তৈরি, ৪ ব্যবসায়ীকে জরিমানা

রাজটাইমস ডেস্ক | প্রকাশিত: ১৭ আগস্ট ২০২২ ২০:১৩; আপডেট: ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২২ ০৭:৩১

ছবি : সংগৃহীত

নাটোর সদর, বড়াইগ্রাম ও লালপুর উপজেলায় অভিযান চালিয়ে ভেজাল গুড় তৈরির কারখানার সন্ধান পেয়েছে জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতর। এসব উপজেলার কয়েকটি কারখানা থেকে ১৯ হাজার ৬০০ কেজি ভেজাল গুড় জব্দ করা হয়েছে।

ওসব কারখানায় ফিটকিরি, চুন, চিনি ও রং দিয়ে তৈরি করা হতো গুড়। এজন্য চার ব্যবসায়ীকে তিন লাখ পাঁচ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। একইসঙ্গে ১৯ হাজার ৬০০ কেজি ভেজাল গুড় ও গুড় তৈরির উপকরণ ধ্বংস করা হয়েছে।

বুধবার (১৭ আগস্ট) সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত অভিযান চালিয়ে এসব ভেজাল গুড় জব্দ করা হয়। পরে চার ব্যবসায়ীকে জরিমানা করেন জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতরের নাটোর জেলা কার্যাল‌য়ের সহকারী প‌রিচালক মো. মেহেদী হাসান তানভীর।

মেহেদী হাসান তানভীর বলেন, মানবদেহের জন্য ক্ষতিকর পদার্থ মিশিয়ে ওসব কারখানায় ভেজাল গুড় তৈরি করা হচ্ছিল। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অভিযান চালানো হয়। অভিযানে সহায়তা করেন নাটোর র‌্যাব-৫-এর সদস্যরা। এ সময় লালপুর উপজেলার ওয়ালিয়া পশ্চিমপাড়া এলাকার গুড় ব্যবসায়ী মতলেবকে ৯০ হাজার, বড়াইগ্রাম উপজেলার আটঘরিয়া এলাকার গুড় ব্যবসায়ী ছলিমকে ৮০ হাজার, বড়াইগ্রাম উপজেলার ভবানীপুর এলাকার গুড় ব্যবসায়ী মোস্তাফিজুরকে ৬০ হাজার এবং নাটোর সদর উপজেলার বনবেলঘরিয়া এলাকার গুড় ব্যবসায়ী সারুককে ৭৫ হাজারসহ তিন লাখ পাঁচ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

তিনি বলেন, ওসব ব্যবসায়ীর কাছ থেকে ১৯ হাজার ৬০০ কেজি ভেজাল গুড় জব্দ করা হয়। পাশাপাশি ভেজাল গুড় তৈরির ২৭ কেজি ফিটকিরি, ১৪ কেজি চুন, চার কেজি রং, এক কেজি বিষাক্ত হাইড্রোজ, দুই কেজি সোডা ও পাঁচ কেজি ডালডা জব্দ করে ধ্বংস করা হয়েছে।



বিষয়:


বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাস

আপনার মূল্যবান মতামত দিন:


এই বিভাগের জনপ্রিয় খবর
Top