নগরীতে জামায়াতের মানববন্ধন

প্রেস বিজ্ঞপ্তি | প্রকাশিত: ১০ ডিসেম্বর ২০২৩ ১৭:০৮; আপডেট: ২৭ মে ২০২৪ ০৮:৩২

সংগ্রহীত

বিশ্ব মানবাধিকার দিবস উপলক্ষে বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর কেন্দ্রীয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে রাজশাহী মহানগরী জামায়াতের উদ্যোগে রবিবার সকাল ১০.৩০ টায় নগরীর রাজশাহী কোর্ট মার্কেট এলাকায় মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করা হয়।

এতে নেতৃত্ব দেন বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামী রাজশাহী মহানগরীর আমীর ও কেন্দ্রীয় কর্মপরিষদ সদস্য ড. মাওলানা কেরামত আলী ও সেক্রেটারী ইমাজ উদ্দিন মন্ডলসহ মহানগরীর বিভিন্ন পর্যায়ের নেতৃবৃন্দ। মানববন্ধন কর্মসূচিতে বক্তব্যে ড.কেরামত আলী বলেন, বাংলাদেশ আজ গুম, খুন ও সন্ত্রাসের অঙ্গরাজ্যে পরিণত হয়েছে। জনগনকে এ থেকে বাঁচতে হলে স্বৈরাচারী ফ্যাসিস্ট হাসিনা সরকারের পতন ঘটানো অতীব জরুরী।

আমরা জনগণকে সাথে নিয়ে ঐক্যবদ্ধভাবে ফ্যাসিস্ট স্বৈরাচারী সরকারের পতন নিশ্চিত করতে চায়। তিনি বলেন, আওয়ামী সরকার পুলিশ বাহিনী দিয়ে বিনা অপরাধে বিরোধী দলের নেতাকর্মীদের গনগ্রেপ্তার করছে।সাদা পোশাকে উঠিয়ে নিয়ে নিরহ মানুষকে নির্যাতন করছে। আজ দেশে মানবাধিকার চরমভাবে লংঘন করা হচ্ছে । রাজশাহী মহানগরীসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে বাড়িতে বাড়ীতে পুলিশ পুরুষকে না পেয়ে মহিলা, শিশু-কিশোরদেরও গ্রেপ্তার করতে ছাড়ছে না।আইন আদালতের আশ্রয় নিলে সেখান থেকেও জামিন বা ন্যায় বিচার পাওয়া যাচ্ছে না।

মানুষ বিনা অপরাধে দীর্ঘদিন জেলে ধুঁকেধুঁকে মরছে।বিচারের নামে প্রহসনের মাধ্যমে ফরমায়েশি রায়ে শাস্তি দেওয়া হচ্ছে।এভাবে একটি দেশ চলতে পারেনা। তিনি হুঁশিয়ারী উচ্চারণ করে বলেন, জনগণ সরকারের পাতানো নির্বাচন কোন ভাবেই হতে দেবে না।ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী ৭ জানুয়ারী'২৪ এ পাতানো নির্বাচন সংঘটিত হলে দেশে যে উদ্ভূত পরিস্থিতির সৃষ্টি হবে এর জন্য এককভাবে সরকারকেই দায়ী থাকতে হবে। তিনি আবারো আমীরে জামায়াত ডাঃশফিকুর রহমান সহ সকল বিরোধী দলের নেতা কর্মীদের মুক্তির জোর দাবি জানান।



বিষয়:


বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাস
এই বিভাগের জনপ্রিয় খবর
Top