বাঘায় স্কূলছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগ

বাঘা প্রতিনিধি | প্রকাশিত: ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২১ ২২:৩৮; আপডেট: ২৪ অক্টোবর ২০২১ ০৬:২৬

প্রতীকি ছবি

রাজশাহীর বাঘায় ৬ষ্ঠ শ্রেণির এক শিক্ষার্থী তার খালু কর্তৃক ধর্ষণের শিকার হয়েছে বলে আভিযোগ পাওয়া গেছে। শনিবার (২৫ সেপ্টেম্বর) বিকেলে উপজেলার নুরনগর গ্রামের বাসিন্দা স্কুলছাত্রীর মা বাদী হয়ে বাঘা থানায় এ অভিযোগ দায়ের করেন।

দায়ের করা অভিযোগে জানা গেছে, ঢাকা মানিকগঞ্জের বাসিন্দা মজিত মোল্লা বৈবাহিক সুত্রে তার শশুর বাড়ী এলাকা আড়ানী নুরনগর গ্রামে প্রায় ২০ লাখ টাকা নিয়ে একটি বাড়ি কেনেন। তিনি ঢাকায় সার্ভেয়ার হিসাবে কর্মরত থাকায় মাঝে-মধ্যে আড়ানী নুরনগর গ্রামের বাড়িতে স্ত্রীকে সাথে করে আসা যাওয়া করেন।

সর্বশেষ, চলতি মাসের প্রথম সপ্তায় তিনি তার স্ত্রীকে সাথে করে নুরনগর গ্রামের বাড়ীতে এসে এক সপ্তাহ থাকেন। এই সময়ের মধ্যে তার ভাইরার মেয়ে ৬ষ্ঠ শ্রেণির ছাত্রী (১৩) ওই বাড়িতে বেড়াতে এলে তিনি তাকে জোরপুর্বক ধর্ষণ করেন। এ সময় তার স্ত্রী পাশের বাড়িতে অবস্থান করছিলো বলে জানা গেছে।

মামলার বাদী স্কুলছাত্রীর মা’ স্থানীয় গণমাধ্যমকর্মী ও পুলিশকে জানান, তার ছোট বোনের স্বামী মজিত মোল্লা ঘটনার পর মেয়েকে প্রাণে মেরে ফেলার হুমকি দেওয়ায় সে কথাটি গোপন রাখেন তিনি। পরে তারা ঢাকায় চলে গেলে স্কুলছাত্রী তার মাকে বিষয়টি জানায়। পরে বোনকে ঘটনাটি অবগত করলে সে বিষয়টি ধামা-চাপা দেয়ার জন্য বাদীকে অনুরোধ করা হয়। আত্নীয়দের সাথে পরামর্শ করার কারনে মামলা করতে বিলম্ব হয় বলে জানান তিনি।

এ বিষয়ে বাঘা থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) সাজ্জাদ হোসেন জানান, শনিবার বিকেলে অভিযোগ পেয়েছি। নিয়মিত মামলা হিসাবে বিষয়টি গ্রহণ করা হয়েছে। স্কুলছাত্রীকে রবিবার সকালে মেডিকেল পরীক্ষার জন্য রামেক হাসপাতালের ফরেনসিক বিভাগ (ওসিসিতে) পাঠানো হবে।

 

 

এসকে




বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাস

আপনার মূল্যবান মতামত দিন:


এই বিভাগের জনপ্রিয় খবর
Top