যুবলীগ নেতা বহিষ্কার

বগুড়ায় বঙ্গবন্ধু’র নামে মাচাং

রাজ টাইমস ডেস্ক | প্রকাশিত: ৩ আগস্ট ২০২১ ১৯:০৩; আপডেট: ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১ ০৬:০৯

আড্ডা দেওয়ার জন্য বঙ্গবন্ধুর নামে বাঁশের মাচাং তৈরি করায় বগুড়া সদরের নুনগোলা ইউনিয়ন যুবলীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক আনিছার রহমান খলিলকে স্থায়ীভাবে বহিষ্কার করা হয়েছে।

সোমবার রাতে খলিলকে স্থায়ীভাবে বহিষ্কার করা হয়েছে।

গত রোববার বিকালে আশোকোলা দক্ষিণপাড়ায় ফিতা কেটে এ মাচাং উদ্বোধন করেছিলেন। ফেসবুকে ভাইরাল হওয়ায় ব্যাপক আলোচনা ও সমালোচনার সৃষ্টি হয়।

জেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক আমিনুল ইসলাম ডাবলু জানান, সাংগঠনিক শৃঙ্খলা ভঙ্গ করায় সোমবার রাতে খলিলকে স্থায়ীভাবে বহিষ্কার করা হয়েছে।

জানা গেছে, নুনগোলা ইউনিয়ন যুবলীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক খলিল আগামী নুনগোলা ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে মেম্বর প্রার্থী। তিনি এলাকায় নির্বাচনী প্রচারণা চালিয়ে আসছেন। গ্রামের লোকজনদের নিয়ে আড্ডা দেওয়ার জন্য
আশোকোলা দক্ষিণপাড়ায় রাস্তার মোড়ে বাঁশ দিয়ে একটি মাচাং তৈরি করেন।
নামকরণ করেন, বঙ্গবন্ধু মাচান। গত ১ আগস্ট রোববার তিনি প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে লাল ফিতা কেটে মাচাং উদ্বোধন করেন। এ সময় বিশেষ অতিথি ৯ নম্বর ওয়ার্ডের মেম্বর প্রার্থী শহিদুল হক আকাশ, ৮ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক রফিকুল ইসলাম, ৮ নম্বর ওয়ার্ডে মেম্বর প্রার্থী তাজুল ইসলাম, সমাজসেবক গোফফার হোসেন, আবদুর রাজ্জাক হিরু প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

মাচাং উদ্বোধনের ছবি ফেসবুকে ভাইরাল হওয়ায় প্রকৃত বঙ্গবন্ধুপ্রেমীদের মাঝে বিরূপ প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি হয়। অনেকে খলিলের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নিতে দাবি জানান।

বগুড়া জেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক আমিনুল ইসলাম ডাবলু জানান, নুনগোলা ইউনিয়ন যুবলীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক আনিছার রহমান খলিল বঙ্গবন্ধুর নামে মাচাং তৈরি করে সংগঠনিক শৃঙ্খলা ভঙ্গ করেছেন। তাই তাকে সংগঠন থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে। তার দলীয় প্রাথমিক সদস্য পদও বাতিল করা হয়।

এ প্রসঙ্গে বহিষ্কৃত যুবলীগ নেতা আনিছার রহমান খলিল জানান, কোনো অসৎ উদ্দেশ্যে নয়; বঙ্গবন্ধুকে ভালোবেসে মাচাংটি তৈরি করিয়েছেন। খলিল আশা করেন, নেতৃবৃন্দ তার বহিষ্কারাদেশ প্রত্যাহার করে নেবেন।

সূত্র ও ছবি: যুগান্তর।



বিষয়:


বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাস

আপনার মূল্যবান মতামত দিন:


এই বিভাগের জনপ্রিয় খবর
Top