ইউক্রেন যুদ্ধে কোনো পক্ষকেই অস্ত্র দেবে না বেইজিং

রাজ টাইমস ডেস্ক : | প্রকাশিত: ১৬ এপ্রিল ২০২৩ ১৬:২২; আপডেট: ২১ মে ২০২৪ ২১:৫৭

চীনা পররাষ্ট্রমন্ত্রী কিন গ্যাং

ইউক্রেনে যুদ্ধরত কোনো পক্ষই চীনা অস্ত্র পাবে না বলে ঘোষণা দিয়েছে বেইজিং। তারা বলেছে, কারো কাছেই অস্ত্র বিক্রি করা হবে না।

শুক্রবার চীনা পররাষ্ট্রমন্ত্রী কিন গ্যাং এ কথা বলেছেন। তিনি বলেছেন, পাশাপাশি বেসামরিক ও সামরিক কাজে ব্যবহার করা যায় এমন পণ্যের রপ্তানিতে নিয়ন্ত্রণ আরোপ করবে।

যুক্তরাষ্ট্র ও ইউরোপীয় দেশগুলো বলে আসছে, রাশিয়াকে প্রাণঘাতী অস্ত্র সরবরাহের বিষয়টি বিবেচনা করছে চীন। এই উদ্বেগের বিষয়ে চীনা পররাষ্ট্রমন্ত্রী এই মন্তব্য করেছেন। ইউক্রেনে চলমান যুদ্ধে রাশিয়াকে রাজনৈতিক ও কূটনৈতিক সমর্থন দিয়ে যাচ্ছে বেইজিং। কিন্তু প্রকাশ্যে নিজেদের নিরপেক্ষ হিসেবে দাবি করছে দেশটি।

চীন সফররত জার্মান পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে সংবাদ সম্মেলনে কিন গ্যাং বলেছে, ইউক্রেনে সংঘাতের একটি শান্তিপূর্ণ সমাধানের আলোচনাকে সহযোগিতা চীন আগ্রহী। সব পক্ষের উচিত বস্তুগত ও শান্ত থাকা। কিন বলেছেন, সামরিক পণ্য রপ্তানির বিষয়ে চীন একটি বিচক্ষণ এবং দায়িত্বশীল মনোভাব গ্রহণ করেছে।

সংঘাতে লিপ্ত কোনো পক্ষকে অস্ত্র সরবরাহ করবে চীন। যেসব পণ্য সামরিক ও বেসামরিক কাজে ব্যবহার করা যায় সেগুলোর রপ্তানি আইন ও বিধি নিয়ে নিয়ন্ত্রণ করা হবে।

জার্মান পররাষ্ট্রমন্ত্রী আনালেনা বেয়ারবক বলেছেন, জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদের একটি স্থায়ী সদস্য হিসেবে সংঘাত অবসানে সহযোগিতার ক্ষেত্রে চীনের বিশেষ দায়িত্ব রয়েছে। রাশিয়ার আক্রমণের পর ইউক্রেনকে দৃঢ় সমর্থন দিয়ে যাচ্ছে জার্মানি।

যুক্তরাষ্ট্র ও ন্যাটো সংঘাতের উসকানি দাতা হিসেবে দায়ি করে আসছে বেইজিংকে। ইউক্রেনে আক্রমণের জন্য রাশিয়ার সমালোচনা করা থেকে বিরত থেকেছে চীন। একই সঙ্গে রাশিয়ার ওপর পশ্চিমাদের নিষেধাজ্ঞার সমালোচনা করেছে দেশটি। —দ্য গার্ডিয়ান



বিষয়:


বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাস
এই বিভাগের জনপ্রিয় খবর
Top