আর কোনদিন শুনবো না

মেহেদী ভাই, মিজান বলছি-

মেহেদী হাসান তালুকদার | প্রকাশিত: ১২ জানুয়ারী ২০২১ ২১:০৪; আপডেট: ১২ জানুয়ারী ২০২১ ২১:০৬

মিজানুর রহমান খান

আর কোনদিন শুনবো না, "মেহেদী ভাই, মিজান বলছি" ডাক... সময়টা ২০১৬ সালের বার্ষিক বিচার বিভাগীয় সম্মেলনের কিছুদিন পর।

আমার মুঠোফোনে অপরিচিত নম্বর থেকে কল এলো। পরিচয় দিল,"আমি প্রথম আলোর মিজানুর রহমান খান।" আমিতে অবাক। উনার সব লেখার পাঠক আমি। সেই কিনা আমাকে ফোন।

ল্যান্ড সার্ভে ট্রাইব্যুনালের রায় কেন বাস্তবায়ন হচ্ছেনা জানতে চাইলেন। সাথে সর্বোচ্চ গোপণীয়তা বজায় রাখার প্রতিশ্রুতি দিলেন। আমি কারণসমূহ আমার মতো করে বল্লাম। সম্মেলনের পরদিন সুপ্রিম কোর্ট অডিটোরিয়ামে ট্রাইব্যুনালের বিচারকদের নিয়ে আলাদা অধিবেশন ছিল। সেখানকার তথ্যাদি দিতে আমি অস্বীকার করি। যারা পাওয়ার পয়েন্ট প্রেজেন্টেশন করেছিল তাদের সাথে যোগাযোগ করতে বলি।

তার কয়েকদিন পর দেখি সমস্ত তথ্যাদিসহ আমার একটি রায় বাস্তবায়ন না হওয়া নিয়ে অনুসন্ধানী প্রতিবেদনসহ শেষ পৃষ্ঠায় লিড নিউজ। তার কয়েকদিন পর ট্রাইব্যুনালের গঠন, মামলা দায়ের, নিস্পত্তি, রায় কার্যকর না করা নিয়ে উপ সম্পাদকীয় কলাম। উদাহরণ হিসেবে আমার রাজবাড়ীর ট্রাইব্যুনালের দেড় শতাধিক রায় বাস্তবায়ন না হওয়ার বিষয়টি সামনে আনা হয়। সাত দিনের মাথায় এডিসি রেভিনিউ, তার পরের সাতদিনের মাথায় মহিলা ডিসিকে ক্লোজড করা হয়।

এভাবেই তাঁর সাথে বাড়তে থাকে সখ্যতা। রাত বিরাতে কত কথা! ঢাকায় এলে দেখা করতে বলতেন। সশরীরে দেখা হলো না। ওপারে ভাল থাকবেন। এইতো আর ক'টা দিন। দেখা হবে নিশ্চয়-ই। ততদিন আপনি জান্নাতের মেহমান হোন- মন থেকে এই কামনা।

 লেখক: মেহেদী হাসান তালুকদার, অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ, নওগাঁ।



বিষয়:


বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাস

আপনার মূল্যবান মতামত দিন:


এই বিভাগের জনপ্রিয় খবর
Top