ভয়াবহ বার্ড ফ্লু জাপানে মুরগি ফেলার জায়গা নেই

রাজ টাইমস ডেস্ক : | প্রকাশিত: ৮ এপ্রিল ২০২৩ ১৫:২৮; আপডেট: ২৯ মে ২০২৪ ০২:২৫

ছবি: সংগৃহীত

জাপানে ভয়াবহ আকার ধারণ করেছে বার্ড ফ্লু। চলতি মৌসুমে এ ভাইরাসে দেশটিতে রেকর্ড ১ কোটি ৭০ লাখ মুরগির মৃত্যু হয়েছে।

এ অবস্থায় জাপানে মুরগি পুঁতে ফেলার জায়গারও সংকট দেখা দিয়েছে। সিএনএনের খবরে বলা হয়েছে, সাম্প্রতিক মাসগুলোতে বার্ড ফ্লুর রেকর্ড প্রাদুর্ভাবের সঙ্গে লড়াই করছে জাপান। যা দেশটিতে মুরগির সরবরাহের ওপর চাপ সৃষ্টি করেছে। একই সঙ্গে বেড়েছে ডিমের দামও।

খবরে আরও বলা হয়, ভাইরাসের বিস্তার রোধ করতে আক্রান্ত মুরগিগুলোকে মেরে ফেলা হচ্ছে। তবে সেখানেও বাধা হয়ে দাঁড়িয়েছে জমির সংকট। আক্রান্ত মুরগি পুঁতে ফেলার জন্য জায়গার অভাবে পড়েছেন দেশটির স্থানীয় প্রশাসন ও খামারিরা। জাপানের রাষ্ট্রীয় সম্প্রচারকারী এনএইচকে জানিয়েছে, সম্প্রতি দেশটির প্রায় সব অঞ্চলেই বার্ড ফ্লু ছড়িয়ে পড়েছে।

এমনকি ২৬ অঞ্চলের মধ্যে ১৬টিতেই আক্রান্ত প্রাণী পুঁতে ফেলার জন্য পর্যাপ্ত জমি নেই। এনএইচকের খবরে আরও বলা হয়, চলতি মৌসুমে রেকর্ড এক কোটি ৭০ লাখেরও বেশি মুরগি মারা হয়েছে। এর আগে সর্বশেষ ২০২০ অর্থবছরে রেকর্ড ৯৯ লাখ মুরগি মারা হয়েছিল। চলতি মাসে এক প্রতিবেদনে রাবোব্যাঙ্ক জানিয়েছে, বার্ড ফ্লুর প্রভাব ও খাবারের উচ্চমূল্যের জন্য এ বছরের প্রথম তিন মাসে ‘ঐতিহাসিক উচ্চ স্তরে’ পৌঁছেছে ডিমের দাম।

ইউক্রেন-রাশিয়াযুদ্ধ ও করোনার কারণে ২০২০ থেকে ২০২২ সালের মাঝমাঝি পর্যন্ত বিশ্বব্যাপী ফিডের দামও প্রায় দ্বিগুণ হয়েছে। রাবোব্যাঙ্কের প্রাণী প্রোটিনের সিনিয়র বিশ্লেষক নান-ডার্ক মুলডার বলেন, গত বছরের এই সময় থেকে এ বছর দাম বেড়েছে প্রায় ১০০ শতাংশেরও বেশি।

সেন্টার ফর ডিজিজ কন্ট্রোল অ্যান্ড প্রিভেনশনের তথ্যমতে, বন্য জলজ পাখিদের মধ্যে প্রাকৃতিকভাবে সংক্রমিত সংক্রমণের কারণে বার্ড ফ্লু হয়। সংক্রমিত পাখি তাদের লালা এবং অন্যান্য শারীরীক স্রাবের মাধ্যমে অন্য প্রাণীদের মধ্যে ভাইরাস প্রেরণ করতে পারে।



বিষয়:


বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাস
এই বিভাগের জনপ্রিয় খবর
Top