রুশ হামলায় ৩১ হাজার সেনা হারিয়েছে ইউক্রেন, দাবি জেলেনস্কির

রাজ টাইমস ডেস্ক : | প্রকাশিত: ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ ১০:১১; আপডেট: ১৯ এপ্রিল ২০২৪ ১১:২৪

- ছবি - ইন্টারনেট

রাশিয়ার হামলায় গত দুই বছরে ৩১ হাজার সেনা সদস্য হারিয়েছে ইউক্রেন।

গতকাল রোববার (২৫ ফেব্রুয়ারি) এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানিয়েছেন ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি। তবে এক্ষেত্রে আহতদের সংখ্যা উল্লেখ করা হবে না বলে জানিয়েছেন তিনি। আহতদের সংখ্যা জানালে মস্কোর সামরিক পরিকল্পনায় সহায়তা করা হবে বলে মনে করেন কিয়েভের এ নেতা। খবর বিবিসি।

গণমাধ্যমটির খবরে বলা হয়েছে, এক বছরের বেশি সময় পর প্রথমবার নিহতের সরকারি হিসাব প্রকাশ করেছেন দেশটির প্রেসিডেন্ট। ইউক্রেন সাধারণত তাদের হতাহতের সংখ্যা প্রকাশ করে না। দেশটিতে হতাহতের সংখ্যা উল্লেখিত সংখ্যার চেয়ে কয়েক গুন বেশি হতে পারে বলে জানিয়েছে বিবিসি।


কিয়েভের পশ্চিমা মিত্রদের সামরিক সহায়তা স্থগিতের পর নিহতের সংখ্যা প্রকাশ করল প্রেসিডেন্ট। দেশটির প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় জানিয়েছে নিজেদের প্রাণ ও ভূখণ্ড রক্ষায় সঠিক পরিসংখ্যান প্রকাশ করা জরুরি।

জেলেনস্কি বলেন, এই যুদ্ধে ইউক্রেনের ৩১ হাজার সেনা প্রাণ হারিয়েছেন। সংখ্যাটা ৩ লাখ বা দেড় লাখ নয়। (রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন) এ নিয়ে মিথ্যাচার করছেন। যা হোক, আমাদের জন্য একটা অনেক বড় এক ক্ষতি।

যুদ্ধে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতির কথা জানিয়ে জেলেনস্কি বলেন, রাশিয়ার দখলে থাকা ইউক্রেনের এলাকায় অন্তত কয়েক হাজার বেসামরিক মানুষ প্রাণ হারিয়েছেন। তবে বেসামিরকদের হতাহতের সঠিক পরিসংখ্যান এখনো জানা যায়নি। তিনি বলেন, তাদের (বেসামরিক) কতজন নিহত হয়েছেন বা কতজনকে নির্বাসিত করা হয়েছে সে বিষয়ে আমার কাছে তথ্য নেই।

এর আগে সর্বশেষ ২০২২ সালের শেষ দিকে যুদ্ধের ক্ষয়ক্ষতির হিসাব দিয়েছিল ইউক্রেন। সেই সময় ইউক্রেনের প্রেসিডেন্টের উপদেষ্টা মিখাইলো পোদোলিয়াক জানিয়েছিলেন, একই বছরের ২৪ ফেব্রুয়ারি রুশ বাহিনীর হামলা শুরুর পর ১৩ হাজার ইউক্রেনীয় সেনা প্রাণ হারিয়েছেন।

তবে যুদ্ধ শুরুর পর থেকে এখন পর্যন্ত সামরিক ক্ষয়ক্ষতি নিয়ে রাশিয়া কোনো হিসাব দেয়নি। তারা বিষয়টিকে গোপন বলে মনে করে।



বিষয়:


বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাস
এই বিভাগের জনপ্রিয় খবর
Top