রাবির অর্ধেকের বেশি শিক্ষার্থীর টিকার তথ্য নেই

রাজটাইমস ডেস্ক | প্রকাশিত: ৫ অক্টোবর ২০২১ ০০:৫৩; আপডেট: ২৪ অক্টোবর ২০২১ ০৬:৫৫

ছবি: সংগৃহীত

প্রশাসনের পক্ষ থেকে করোনার টিকাগ্রহণ সংক্রান্ত তথ্য জমা দিতে শিক্ষার্থীদের মুঠোফোনে এসএমএস পাঠালেও তথ্য জমা দিচ্ছেন না রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা।

বিশ্ববিদ্যালয়ের আইসিটি সেন্টার সূত্রে জানা গেছে, করোনার টিকা সংক্রান্ত চারটি ক্যাটগরিতে তথ্য চেয়ে গত ৩০ আগস্ট একটি লিংক তৈরি করে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। যেখানে শিক্ষার্থীদের তথ্য দিতে বলা হয়। কিন্তু অল্প সংখ্যক শিক্ষার্থী তথ্য দেওয়ায় কয়েক দফা সময় বাড়ানো হয়। তবে তাতেও সাড়া দেয়নি বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রায় অর্ধেক শিক্ষার্থী।

সর্বশেষ ইউজিসিতে পাঠানো তথ্যে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন জানিয়েছে, এ পর্যন্ত ১৪ হাজার ৫৯ জন শিক্ষার্থী টিকা নিতে তথ্য দিয়েছেন। তবে বিশ্ববিদ্যালয়ে বর্তমানে শিক্ষার্থীর সংখ্যা ২৯ হাজারের বেশি।

আইসিটি সেন্টারের পরিচালক অধ্যাপক বাবুল ইসলাম বলেন, ‘টিকা সংক্রান্ত তথ্য চেয়ে শিক্ষার্থীদের মুঠোফোনে এসএমএস পাঠানো হয়েছে। তবুও অনেক শিক্ষার্থী তথ্য দিচ্ছে না। টিকা সংক্রান্ত তথ্য প্রদানের লিংকটি এখনো চালু রাখা হয়েছে। যে কেউ চাইলেই সেখানে তথ্য দিতে পারবে।’

বিদেশি শিক্ষার্থীদের টিকার আওতায় আনার প্রক্রিয়ার ব্যাপারে তিনি বলেন, ‘বিদেশি শিক্ষার্থীদের থেকে পাসপোর্টের কপি নিয়ে টিকার জন্য তথ্য পাঠানো হয়েছে।’

এদিকে, আগামী ১৭ অক্টোবর বিশ্ববিদ্যালয়ের সব আবাসিক হল খুলে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। বিশ্ববিদ্যালয়ের ২৫৪তম অ্যাকাডেমিক কমিটির সভায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

জানা গেছে, অ্যাকাডেমিক কমিটির ওই সভায় অনেক শিক্ষকই ভর্তি পরীক্ষার আগে বিশ্ববিদ্যালয়ের হল খুলে দেওয়ার দাবি জানিয়েছিলেন। শিক্ষা পরিষদের সদস্য হিসেবে সভায় অংশ নিয়ে দাবি জানানোদের মধ্যে একজন আরবি সাহিত্য বিভাগের অধ্যাপক ড. ইফতেখারুল আলম মাসউদ।

তিনি বলেন, উপাচার্যকে আবাসিক হলগুলো ভর্তি পরীক্ষার আগে খুলে দিতে প্রস্তাব দিয়েছিলাম। জবাবে উপাচার্য জানিয়েছিলেন, ‘বিশ্ববিদ্যালয়ের ৭০ শতাংশ শিক্ষার্থী টিকার আওতায় না এলে হল না খোলার ব্যাপারে নির্দেশনা আছে। শিক্ষার্থীদের থেকে আমরা তথ্য চেয়েছি। তথ্য জমা দেওয়াদের মাত্র ৬০ শতাংশ শিক্ষার্থী টিকা পেয়েছেন। তাই হল খোলার তারিখ পেছানো হয়েছে।’

সূত্র: 



বিষয়:


বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাস

আপনার মূল্যবান মতামত দিন:


এই বিভাগের জনপ্রিয় খবর
Top